নীলফামারিতে চালককে খুন করে অটোরিকশা ছিনতাই

মোঃ মাহাবুব আলম,নীলফামারী সদর উপজেলার, চাপড়া সরমজানির ইটাপিরে দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে মোঃ হালিম(৪০) নামের এক অটোরিকশা চালক খুন হয়েছেন।

গতকাল রবিবার গভীর রাতে চাপড়া সরমজানি ইটাপির নদীর ব্রিজ সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।নিহত হালিম নীলফামারী সদর উপজেলা লতিফ চাপড়া, ঘাটের পাড় গ্রামের, মৃত্য আবছার আলীর ছেলে।

এলাকাবাসী জানান, অজ্ঞাতনামা ছিনতাইকারীরা যাত্রীবেশে রিকশাচালক হালিমের গাড়িতে উঠে এরপর সংযোগ সড়কের পাশে নির্জনস্থানে নিয়ে চালককে ছুড়িকাঘাত করে হত্যা করে এখানে ফেলে দিয়ে অটোরিকশা নিয়ে পালিয়ে যায়।

আজ সোমবার ভোরে পথচারীরা রাস্তার পাশে পা বাধা রক্তাক্ত লাশ দেখে চিৎকার করলে এলাকাবাসী জড়ো হন, এলাকাবাসীর কাছে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল এসে হালিমের লাশ উদ্ধার করে।নীলফামারি সদর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) নুর ইসলাম বলেন, দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে অটোরিকশা চালকের মৃত্যু হয়েছে। দুর্বৃত্তরা তাঁর অটোরিকশা ছিনতাই করে নিয়ে গেছে। দুর্বৃত্তদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। লাশের ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।তবে এটিকে পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড বলে ধারণা করছে পুলিশ। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

নীলফামারী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রউফ

জানান, রবিবার সন্ধ্যায় হালিম অটোরিকশা নিয়ে বের হন। এরপর রাতেই খুন হন তিনি। তার পেটে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। আপাতদৃষ্টিতে ঘটনাটি ছিনতাই বলে মনে হলেও ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও পর্যবেক্ষণ করে এটি একটি পূর্বপরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড বলে ধারণা করা হচ্ছে। পরিচিত কেউ হয়তো ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকতে পারে। তবে আমরা সব দিক বিবেচনায় রেখেই এগুচ্ছি। মূল আসামি শিগগির ধরা পড়বে বলে ওসি জানান।