শীতলক্ষায় অর্ধশতাধিক যাত্রী নিয়ে লঞ্চ ডুবিঃ উদ্ধার কাজ ব্যাহত

নারায়ণগঞ্জের শীতলক্ষ্যা নদীতে সাবিত আল হাসান নামে মুন্সিগঞ্জগামী একটি লঞ্চ অর্ধশতাধিক যাত্রী নিয়ে ডুবে যাওয়ার ঘটনায় প্রতিকূল আবহাওয়ায় ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধার অভিযান ব্যাহত হচ্ছে।

রোববার (৪ এপ্রিল) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে শীতলক্ষ্যা নদীর চর সৈয়দপুর এলাকার ব্রিজ সংলগ্ন স্থানে এ ঘটনা ঘটে।এ ঘটনার পর রাত সাড়ে ৮টার দিকে এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তাৎক্ষণিকভাবে তার নাম-পরিচয় জানা যায়নি।ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের নারায়ণগঞ্জের উপ-সহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ আল আরেফীন বলেন, রাত সাড়ে ৮টার দিকে আমরা এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করতে পেরেছি। প্রচণ্ড বাতাস ও ঝড়ের পাশাপাশি বৃষ্টির কারণে পুরোদমে উদ্ধার অভিযান শুরু করা সম্ভব হচ্ছে না।

তিনি আরও বলেন, আবহাওয়া এতটাই প্রতিকূলে যে উদ্ধারকারী যানগুলো পাশে দাঁড়াতেই পারছে না। আমাদের তিনটি টিম কাজ করছে। আবহাওয়া একটু অনুকূলে এলেই দ্রুত উদ্ধার অভিযান শুরু হবে।

সন্ধ্যা ৬টার পর লঞ্চটি নারায়ণগঞ্জ থেকে মুন্সিগঞ্জের দিকে রওয়ানা দেয়। একটি কার্গোর সঙ্গে ধাক্কা লেগে এটি ডুবে যায় বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।

লঞ্চ মালিক সমিতির সভাপতি বদিউজ্জামান বাদল  জানান, লঞ্চটি সন্ধ্যা ৬টার কিছু সময় পর নারায়ণগঞ্জ ছেড়ে যায়। পথিমধ্যে এটি দুর্ঘটনার শিকায় হয় এবং অর্ধশতাধিক যাত্রী নিয়ে ডুবে যায়