ছেলেকে হারিয়ে আহাজারি করছেন মা ফুলমতী

মোঃরফিকুল ইসলাম মিঠু:কুমিল্লার ১৬ নম্বর ওয়ার্ড সংরাইশ পাকপাঞ্জতান মুজিবীয়া সুন্নিয়া হাফেজিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানা থেকে সাব্বির হোসেন সজিব (৭) নামে এক শিশু শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল রোববার রাত ৮টার দিকে মাদ্রাসাটি থেকে লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ।

সাব্বির আদর্শ সদর উপজেলার জগন্নাথপুর ইউনিয়নে ফুলমতী বেগমর সন্তান। ফুলমতীর ২ ছেলে ৩ মেয়ের মধ্যে সজিব বড়। ৩ মাস আগে তাকে মুজিবীয়া সুন্নিয়া হাফেজিয়া মাদ্রাসায় ভর্তি করা হয়। রোববার সন্ধ্যায় সজিবের জন্য খাবার নিয়ে মাদ্রাসায় গেলে ছেলের লাশ দেখতে পান তিনি।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কোতয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনোয়ারুল হক। তিনি জানান, রোববার সন্ধ্যায় মাদ্রাসায় গিয়ে ছেলেকে না দেখতে পেয়ে প্রথমে মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক জোনাইদ আহমেদকে তার ব্যাপারে জানতে চান তিনি। তখন প্রধান শিক্ষক জানান, তিনি সজিবকে ছুটি দিয়েছেন। ফুলমতী এ সময় ছেলে বাড়িতে যায়নি বলে জানান। পরে মাদ্রাসার ভেতর লেপ-তোশকের স্তূপে সজিবের মরদেহ দেখতে পান তিনি।
খবর পেয়ে কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. সোহান সরকার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। তিনি বলেন, ‘আমি এখনো নিশ্চিত না কীভাবে শিশুটি মারা গেছে। তবে আমরা মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষকসহ মোট তিনজন শিক্ষককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় এনেছি। শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।’