উত্তরায়্ মধ্যরাতে র‍্যাব কর্মকর্তার মেয়েকে অক্ষত অবস্থায় উদ্বার করলো ফায়ার সার্ভিস

এস,এম,মনির হোসেন জীবন : রাজধানীর উত্তরায় ৬ষ্টতলা ভবনের তৃতীয় তলার একটি ফ্ল্যাটে আটকা পড়া অবস্থায় এক র‍্যাব কর্মকর্তার মেয়েকে অক্ষত অবস্থায় উদ্বার করলো ”দি লাইফ সেভিং ফোর্স বাহিনী”।

আটকে পড়া ওই মেয়েটির নাম ফারিহা তাবাসসুম (১৬) । তার পিতার নাম মো: আকতার হোসেন বলে জানা গেছে।
শুক্রবার দিবাগত রাত ৩ টার দিকে উত্তরা পূর্ব থানার ৬ নম্বর সেক্টর বাড়ি নং-৩৩, রোড নম্বর -১ এর ৬ষ্ট তলা বাড়ির তৃতীর তলার ফ্ল্যাটে এ ঘটনা ঘটে।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স উত্তরা স্টেশনের স্টেশন অফিসার মোহাম্মদ হানিফ আজ শনিবার এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান, শুক্রবার দিবাগত রাত ৩ টার দিকে উত্তরা পূর্ব থানার ৬ নম্বর সেক্টর বাড়ি নং-৩৩, রোড নম্বর -১ এর ৬ষ্ট তলা বাড়ির তৃতীর তলার ফ্ল্যাটে বেডরুমে ফারিহা তাবাসসুম নামে (১৬) বছরের একটি মেয়ে ভেতরে আটকা পড়েছে। পরে এমন সংবাদ পাওয়ার সাথে সাথে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স উত্তরা স্টেশন থেকে একটি উদ্ধারকারী দল ও ইটি গাড়িসহ আমি ঘটনাস্থলে পৌঁছায়।ঘটনাস্থলে পৌঁছে দেখতে পাই যে, মেয়েটি তার বেডরুমে তালাবদ্ধ হয়ে আছে। তার বাবা- মা অনেক সময় যাবৎ চেষ্টা করে তার রুমটি খুলতে পারেননি। প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচেছ, তালাটি বিকল হয়ে দরজার সাথে আটকে গিয়েছিল। কারণ, আমরা প্রথম চাবি দ্বারা খোলার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছি। পরবর্তীতে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের অত্যাধুনিক উদ্ধারকারী সরঞ্জাম ”ডোর ওপেনার” ধারা দরজাটি খুলে মেয়েটিকে অক্ষত ভাবে উদ্ধার করতে সক্ষম হয় ।
ফায়ার সার্ভিসের এ কর্মকর্তা আরও জানান, মেয়েটির বাবার নাম: মোঃ আকতার হোসেন। তিনি এলিট ফোর্স র‍্যাব-২ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হিসেবে কর্মরত আছেন ।

এবিষয়ে জানতে মেয়েটির বাবা মোঃ আকতার হোসেনের সাথে তার 01915533316 নম্বর মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল করে যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। সে কারণে তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।