র‍্যাবের পৃথক অভিযানে ২১ জুয়াড়ি গ্রেফতার : নগদ টাকা মোবাইল ও টিভি জব্দ

এস,এম,মনির হোসেন জীবন : রাজধানীর অদূরে নারায়নগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ ও দক্ষিন কেরানীগঞ্জে পৃথক দু’টি থানা এলাকায় গোপনে জুয়ার বোর্ডে অভিযান চালিয়ে ২১ জুয়াড়ি গ্রেফতার করেছে র‍্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)।

এসময় ধৃত আসামীদের কাছ থেকে নগদ ছিয়ানব্বই হাজার পঞ্জান্ন টাকা, একুশ টি মোবাইল ফোন সেট, দুইশ আট পিস তাস, একটি টেলিভিশন ও একটি রিপোট জব্দ করা হয়।
র‍্যাব জানান, আটককৃতদের মধ্যে সিদ্ধিরগঞ্জ থেকে তের জন ও বাকী আট জনকে দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থেকে আটক করে র‍্যাব- ১০।
শুক্রবার দিবাগত রাতে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার মিজমিজি কান্দাপাড়া ও দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানার মীরেরবাগ বালুরচর এলাকায় পৃথক দু’টি জুয়ার বোর্ডে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করা হয়।


র‍্যাব- ১০ এর (অধিনায়ক) এ্যাডিশনাল ডিআইজি মাহ্ফুজুর রহমান, বিপিএম আজ শনিবার এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান, শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে নয়টার দিকে র‍্যাব-১০ এর একটি আভিযানিক দল নারায়ণগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ থানার মিজমিজি কান্দাপাড়া এলাকায় একটি বিশেষ অভিযান চালায়। অভিযানকালে র‍্যাব সদস্যরা টেলিভিশনে সম্প্রচারিত আইপিএল খেলার উপর টাকা দিয়ে জুয়া খেলা অবস্থায় ১৩ জন জুয়ারীকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিরা হলো- মোঃ পলাশ (৩২), মোঃ নয়ন ইসলাম (২৫), মোঃ শাহ পরান ভূঁইয়া (২৪), মোঃ রাহাত (২৩), ইকবাল (৪০), মোঃ মাসুম (২৮), মোঃ বাচ্চু মিয়া (৩৫), মোঃ লিটন (৪৬), মোঃ জহুরুল ইসলাম (২৪), মোঃ শাহীন (৩৯), মোঃ জাহাাঙ্গীর আলম (২৩), মোঃ আলমগীর (৩২) ও মিজান ওরফে জিকু (২০)।
এসময় তাদের নিকট থেকে ১ টি টেলিভিশন, ১ টি রিমোট, ১৪ টি মোবাইল ফোন ও নগদ- ৮৮ হাজার ৪৩৫ টাকা উদ্ধার করা হয়।

এ্যাডিশনাল ডিআইজি মাহ্ফুজুর রহমান আরও জানান, এছাড়া একই দিন শুক্রবার দিবাগত রাত পৌনে ১১ টার দিকে র‍্যাব- ১০ এর অপর একটি আভিযানিক দল ঢাকা জেলার দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানা মীরেরবাগ বালুরচর এলাকায় একটি জুয়ার বোর্ডে অভিযান চালায়। অভিযানকালে র‍্যাব- ১০ এর সদস্যরা জুয়ার আসর থেকে জুয়া খেলা অবস্থায় ৮ জন জুয়ারীকে গ্রেফতার করে।
গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিরা হচেছ- মোঃ শাহজাহান সাজু (৩৬), মোঃ হীরা (৩০), বিজয় সরকার ওরফে স্বর্নকমল (৩৮), মোঃ নুরুল ইসলাম (৪১), মোঃ বাদল হাওলাদার (৩৯), মোঃ ইদ্রিস আলী (৩৬), অশোক কুমার বর্মন (৩৭) ও মোঃ শাহীন শেখ (৪০)।
এসময় তাদের নিকট থেকে খোলা অবস্থায় ২০৮ পিস জুয়া খেলার কার্ড (তাস), ৭ টি মোবাইল ফোন ও নগদ- ৭৬২০ টাকা উদ্ধার করা হয়।
প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিরা পেশাদার জুয়াড়ি। তারা দীর্ঘদিন যাবৎ একে অন্যের সাথে জুয়া খেলে সমাজে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে এবং জুয়া খেলার মাধ্যমে নিজেদের সর্বস্ব হারাচ্ছে।
এবিষয়ে গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মামলা রুজু করা হয়েছে।