র‍্যাবের পৃথক অভিযানে ৫৮ জুয়ারি গ্রেফতার

এস,এম,মনির হোসেন জীবন : রাজধানীর ডেমরা, নারায়নগঞ্জ ও দক্ষিণ কেরানীগঞ্জে পৃথক তিনটি থানা এলাকায় গোপনে জুয়ার বোর্ডে অভিযান চালিয়ে ৫৮ জুয়ারি গ্রেফতার করেছে র‍্যাব।
অভিযানকালে ধৃত জুয়ারিদের কাছ থেকে মোট নগদ ৩ লাখ ছত্রিশ হাজার ছয়শ নব্বই টাকা, ৬৭টি মোবাইল ফোন সেট, এক হাজার চল্লিশ পিস তাস, এটি টেলিভিশন ও একটি রিমোট জব্দ করা হয়।
আজ রোববার দুপুরে ও শনিবার দিবাগত মধ্যরাতে ডেমরা, নারায়নগঞ্জ ও দক্ষিণ কেরানীগঞ্জে পৃথক অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করা হয়।
র‍্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব-১০) এর (অধিনায়ক) এ্যাডিশনাল ডিআইজি মাহ্ফুজুর রহমান, বিপিএম আজ রোববার এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, আজ রোববার দুপুর পৌনে ২টার দিকে র‍্যাব-১০ এর একটি আভিযানিক দল রাজধানীর ডেমরা থানার সারুলিয়া এলাকায় একটি বিশেষ অভিযান চালায়। এসময় জুয়ার আসর থেকে জুয়া খেলা অবস্থায় ৫ জন জুয়ারীকে গ্রেফতার করে।
গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিরা হচেছ- শফিকুল ইসলাম (৩৮), মোঃ আল আমিন (২৬), মোঃ শাহজালাল (২৩), সিরাজুল ইসলাম (৩২), একরাম হোসেন (৩৯)।
অভিযানকালে ধৃত আসামীদের নিকট থেকে খোলা অবস্থায় ১০৪ জুয়া খেলার কার্ড (তাস), ৬ টি মোবাইল ফোন ও নগদ- ১ হাজার ৭০০ টাকা উদ্ধার করা হয়।
এ্যাডিশনাল ডিআইজি মাহ্ফুজুর রহমান আরও জানান, শনিবার দিবাগত রাত পৌনে ১০ টার দিকে র‍্যাব-১০ এর অপর একটি দল নারায়ণগঞ্জ জেলার নারায়ণগঞ্জ সদর থানার গুদারাঘাট টানবাজার এলাকায় গোপনে একটি জুয়ার বোর্ডে অভিযান চালিয়ে জুয়া খেলা অবস্থায় ২২ জন জুয়ারীকে হাতেনাতে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃত ব্যক্তি হলো- সর্বজিৎ সাহা (৪৩), মোঃ আলমগীর (৫৬), কৃষ্ণ রায় (৪২), লিটন কুমার রায় (৪৬), মোঃ কমল ওরফে বাবু (৩২), মোঃ এনামুল (৩২), মোঃ হাসান জামান (৪৭), মোঃ নজরুল (৪৫), রিপন কুমার সাহা (৪৫), লক্ষন সাহা (৩০), মোঃ হাফিজুর রহমান (৩৮), মোঃ সোলায়মান (৩৪), তাপস কুমার শীল (৪৭), মোঃ শুক্কুর মিয়া (৪৯), শ্যামল বৈদ্য (৪২), মোঃ আবু সাবেদ প্রিন্স (৩০), মোঃ জলিল খান (৫৭), মোঃ রুবেল (৩৪), মোঃ রুস্তম (৫৬), মোঃ মনির হোসেন (৪১), জীবন কুমার সাহা (৪৪) ও রিপন সাহা (৪৭)।

এসময় তাদের নিকট থেকে খোলা অবস্থায় ৩১২ পিস জুয়া খেলার কার্ড (তাস), ২৯ টি মোবাইল ফোন ও নগদ- ২ লাখ ৩১ হাজার ২০০ টাকা উদ্ধার করা হয়।
র‍্যাব-১০ এর অধিনায়ক জানান, এছাড়া শনিবার দিবাগত রাত ১১ টার দিকে র‍্যাব-১০ এর সদস্যরা ঢাকা জেলার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার গোলাম বাজার ও একই থানার কালিগঞ্জ বাজার এলাকায় দু’টি পৃথক অভিযান চালায়। এসময় তারা টেলিভিশনে সম্প্রচারিত আইপিএল খেলার উপর টাকা দিয়ে জুয়া খেলা অবস্থায় ও জুয়ার আসর থেকে জুয়া খেলা অবস্থায় ১০ জন করে মোট ২০ জন জুয়ারীকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিরা হলো- মোঃ মাইনুদ্দিন (৪৬), মোঃ রাকিব (৩০), মিরাজ (৩৫), মোঃ আনোয়ার হোসেন (৪০), মোঃ রাসেল (৩০), মোঃ আক্তার শিকদার (৪০), মোঃ রুবেল (২৩), সজিব বেপারী (২৪), মোঃ শহিদ (৩৫), মোঃ রমজান শেখ (২৫), মোঃ আনিস ফকির (৪৬), মোঃ শাহীন (৪২), মোঃ শাহীন (৩৪), মোঃ মোকছেদ বেপারী (৫০), মোঃ খবির উদ্দিন (৫০), মোঃ কবির হোসেন (৪০), মোঃ ইয়াকুব আলী (৪৪), মোহাম্মদ আলী ভূইয়া (৬০), মোঃ রিয়াজ দফাদার (৪০) ও মোঃ স্বপন খান (৪৫)।
এসময় তাদের নিকট থেকে ১টি টেলিভিশন, ১টি রিমোর্ট, ১টি মনিটর খোলা অবস্থায় ১৫৬ পিস জুয়া খেলার কার্ড (তাস), ২২টি মোবাইল ফোন ও নগদ- ৭৯ হাজার ৬৩০ টাকা উদ্ধার করা হয়।
র‍্যাব-১০ এর এ কর্মকর্তা আরও জানান, শনিবার দিবাগত রাত সোয়া ১১ টার দিকে র‍্যাব-১০ এর অপর একটি দল ঢাকা জেলার কেরানীগঞ্জ মডেল থানার জিনজিরা আটাপট্টি রোড এলাকায় গোপনে একটি জুয়ার বোর্ডে অভিযান চালিয়ে জুয়া খেলা অবস্থায় আরও ১১ জন জুয়ারীকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিরা হচেছ- মোঃ ইয়াসিন ওরফে বাবু (২৩), মোঃ এ্যানি খনদকার (২৯), মোঃ আল আমিন (২৫), মোঃ রাসেল (৩৩), মোঃ ওমর আলী মোল্লা (২৭), নিপু বর্মণ (১৮), মোঃ মেজবাহ উদ্দিন (৬০) ও মোঃ কামাল সরদার (২৮), মোঃ বিল্লাল হোসেন (২৪), মোঃ ওহিদুল মাতব্বর(৩২) ও মোঃ আঃ জব্বার (২৮)।
এসময় তাদের নিকট থেকে খোলা অবস্থায় ৪৬৮ পিস জুয়া খেলার কার্ড (তাস), ১০ টি মোবাইল ফোন ও নগদ- ২৪ হাজার ১৬০ টাকা উদ্ধার করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় , গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিরা পেশাদার জুয়াড়ি। তারা দীর্ঘদিন যাবৎ একে অন্যের সাথে জুয়া খেলে সমাজে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে এবং জুয়া খেলার মাধ্যমে নিজেদের সর্বস্ব হারাচ্ছে।
এবিষয়ে গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মামলা রুজু করা হয়েছে।