“বর্ণ ফাউন্ডেশনের” উদ্যোগে কর্মহীন মানুষদের মাঝে ইফতার বিতরন

এম এ হানিফ রানা, গাজীপুরঃ  রহমত, মাগফিরাত ও নাজাতের মাস হলো পবিএ মাহে রমজান। দেখতে দেখতে রহমতের ১০ দিন অতিবাহিত হয়ে গেলো। মাগফিরাতেরও ১০ দিন চলে গেলো। এখন চলে যাচ্ছে নাজাতের ১০ দিন। তাই ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা ইবাদত বন্দেগিতে পার করছে একেকটি দিন। যেনো আল্লাহ ত ‘আলা এই মাহে রমজানের উছিলায় সকলকে কবুল করে নেন।

কিন্তু করোনা পরিস্থিতি এবং বেশ কয়েকদিন লকডাউন থাকার কারনে সাধারণ মানুষের জনজীবনে দুর্ভোগ নেমে এসেছে। অসহায় উপার্জন হারানো নিন্মবিত্তের হাহাকার যেনো তারই প্রমান দিয়ে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত। এমনি দুর্যোগ পূর্ণ সময়ে মানবতার ডাকে এগিয়ে এসেছেন দূর্যোগ দুঃসময় পাশে আছি সবসময় স্লোগানে ” বর্ণ ফাউন্ডেশন” নামে একটি সেচ্ছাসেবী সংগঠন।

একঝাঁক তরুনদের নিরলস পরিশ্রম ও ত্যাগের মাধ্যমে এগিয়ে যাচ্ছে সংগঠনটির কার্যক্রম এবং প্রশংসা কুরাচ্ছে সকল মহলে। দল মত নির্বিশেষে সকলেই এগিয়ে আসছেন সংগঠনটির জন্য। পুরো রমজান জুরে বিভিন্ন স্হানে সাহায্য সহযোগিতা এবং ছিন্নমূল থেকে শুরু করে অনেক এতিম ছাএছাএীদের মাদ্রাসাতেও সাহায্যের হাত বারিয়ে দিচ্ছেন ” বর্ণ ফাউন্ডেশন ” সংগঠনটি।

তারই ধারাবাহিকতার অংশ হিসেবে আজ গাজীপুরের প্রাণকেন্দ্র জয়দেবপুর বাস্টান্ডে করোনা কালীন সময়ে কর্মহীন অসহায় মানুষের মাঝে ইফতার বিতরন করে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বর্ণ ফাউন্ডেশন। এসময় ২০০ কর্মহীন মানুষের মাঝে ইফতার বিতরন করে সংগঠনটি।

সকলেই শতস্ফুর্ত ভাবে সমাজিক সুরক্ষা নিশ্চিত করে অংশ গ্রহণ করেন এই ইফতার বিতরনে। বর্ণ ফাউন্ডেশনের নিবেদিত কর্মীদের প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে তারা বলেন, আমরা আমাদের স্বাধ্য মতো চেষ্টা করে যাচ্ছি মানুষকে এই করোনা কালিন এবং মাহে রমজানে সাহায্য সহযোগিতা করার জন্য।

যেহুতে এখন অনেক মানুষ কর্মহীন হয়ে গেছেন এবং কষ্টে দিন পার করছেন তাই আমরা কিছুটা হলেও চেষ্টা করছি তাদের পাশে দারানো। এবং আগামীতেও আমাদের এই চেষ্টা ও প্রয়াস অব্যাহত থাকবে ইনশাআল্লাহ। সেচ্ছাসেবী সংগঠন ” বর্ণ ফাউন্ডেশনের ” পক্ষে উপস্থিত ছিলেন লোকমান মিয়া,আরিফ মোস্তফা বাবু , আব্দুল্লাহ্ আল মামুন, নিশান মোল্লাহ্, তানজিম সোহেল,আহসান হাবীব সহ আরো অনেকে।