শাহজালাল বিমানবন্দরে ২০ পিস সোনার বার সহ এক যাএী আটক

এস,এম,মনির হোসেন জীবন ঃহযরত শাহজালালে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সৌদি আরব ফেরত এক যাত্রীর প্রেশার কুকার ও চার্জার লাইট এর ভেতর থেকে ২ কেজি ২০ গাম স্বর্ণ উদ্ধার করেছে ঢাকা কাস্টম হাউসের প্রিভেন্টিভ টিম।

আটক ওই যাএীর নাম বাহার মিয়া। তার বাড়ি খাগরাছড়ি জেলায়।
আটককৃত স্বর্ণের মধ্যে ২০ পিস সোনার বার রয়েছে। যার আনুমানিক বাজার মূল্য ১ কোটি ৩০ লক্ষ টাকা বলে জানা গেছে।
আজ শনিবার দুপুরে শাহজালালে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে গ্রীণ চ্যানেল এলাকা থেকে এসব সোনা উদ্ধার মুলে জব্দ করা হয়।
ঢাকা কাস্টম হাউসের ডেপুটি কমিশনার (প্রিভেন্টিভ টিম) মোহাম্মদ আব্দুস সাদেক আজ শনিবার এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে
চোরাচালান প্রতিরোধে ঢাকা কাস্টম হাউস ঢাকার প্রিভেন্টিভ টিমের কর্তব্যরত কর্মকর্তাগণ বিমান বন্দরের বিভিন্ন পয়েন্টে অবস্থান করে নজরদারী করতে থাকে। পরে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে আজ শনিবার দুপুর ১টার দিকে সৌদি আরব থেকে আগত ফ্লাইট নং ( SV- 3580) এর মাধ্যমে আসা যাত্রী বাহার মিয়া গ্রীণ চ্যানেল অতিক্রম কালে তার সাথে থাকা ব্যাগেজে কোন স্বর্ণবার বার স্বর্ণালংকার আছে কিনা জানতে চাওয়া হলে তিনি তা অস্বীকার করেন। পরবর্তীতে যাত্রীর সাথে থাকা ব্যাগেজ স্ক্যানিং করলে ব্যাগেজে স্বর্ণের অস্তিত্ব পাওয়া যায়।

মোহাম্মদ আব্দুস সাদেক আরও জানান, ব্যাগেজ কাউন্টারে এনে প্রেশার কুকার ও চার্জার লাইট ভেংগে এর ভেতর হতে প্রায় ২ কেজি ২০ গাম সোনার গলানো পাত উদ্ধার করা হয়। যার মধ্যে ২০ পিস সোনার বার রয়েছে। আটককৃত স্বর্ণের আনুমানিক বাজার মূল্য ১ কোটি ৩০ লক্ষ টাকা।

ঢাকা কাস্টম হাউসের ডেপুটি কমিশনার বলেন, পাসপোর্ট অনুসারে আটক যাত্রীর নাম বাহার মিয়া এবং তার বাড়ি খাগরাছড়ি জেলায়।
এবিষয়ে আটককৃত স্বর্ণের বিষয়ে কাস্টমস আইনে ব্যবস্থা নেয়া হবে এবং যাত্রীকে বিমান বন্দর থানায় সোপর্দ করা এবং ফৌজদারী মামলা দায়ের করা হয়েছে।