মাথাব্যথার যন্ত্রণা সইতে না পেরে হাসপাতালে আত্মহত্যা

মোঃ রিপন মিয়া সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার:
মাথাব্যথার যন্ত্রণা সইতে না পেরে হাসপাতালে আত্মহত্যা
সাভারে মাথাব্যথার অসহ্য যন্ত্রণা সইতে না পেরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তুলসী মালো (৩৪) নামের এক নারী আত্মহত্যা করেছেন।

রোববার (২৩ মে) দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সাভার মডেল থানার পরিদর্শক (ইনটেলিজেন্স) আল-আমীন।
এর আগে শনিবার বিকেলে প্রচণ্ড মাথাব্যথা নিয়ে সাভারের প্রাইম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

নিহত তুলসি মালো টাঙ্গাইল জেলার মির্জাপুর থানার খলিয়াজানি গ্রামের জয়দেব মালোর মেয়ে।
নিহত ব্যক্তির ভাই রঞ্জিত মালো বলেন, আমার বোন গাজীপুরের কালিয়াকৈর থানার সূত্রাপুরে স্বামী মঙ্গল মালোর সঙ্গে বাস করত।

মাঝেমধ্যেই তার মাথায় প্রচণ্ড যন্ত্রণা হতো। গতকালও তার প্রচণ্ড মাথাব্যথা হয়। পরে চিকিৎসার জন্য সাভারে এলে বিকেল চারটার দিকে তাকে প্রাইম হাসপাতালে নেওয়া হয়।
সেখানেই তার চিকিৎসা চলছিল। রাতে তার সঙ্গে তার চাচাতো ভাশুরের স্ত্রী বিনতা মালোকে (৪৫) রেখে সবাই বাসায় চলে যান।
তিনি বলেন, রোববার ভোরে মাথার যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে মাথার চুল ছিঁড়তে থাকে। এ সময় বিনতা মালোকে পানি আনতে পাঠিয়ে ভেতর থেকে দরজা লাগিয়ে পরনের কাপড় দিয়ে ফ্যানের সঙ্গে গলায় ফাঁস নেয়। সাভার মডেল থানায় খবর দিলে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে।

সাভার মডেল থানার পরিদর্শক (ইনটেলিজেন্স) আল-আমিন ঢাকা পোস্টকে জানান, ভোরে খবর পেয়ে হাসপাতাল থেকে নিহত ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় সাভার মডেল থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে