টঙ্গীতে র‍্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে ৩০ মামলার আসামি রোকন নিহত

এস, এম, মনির হোসেন জীবনঃ রাজধানীর অদূরে গাজীপুরের টঙ্গীতে এলিট ফোস’ র‌্যাবের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ টঙ্গীর শীর্ষ সন্ত্রাসী মাদককারবারি ও ৩০ মামলার পলাতক আসামি মোঃ রোকন শিকদার (৩২) নিহত হয়েছেন।

এঘটনায় এলিট ফোস’ র‌্যাবের দুই সদস্য আহত হয়েছেন। তাদেরকে গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল চিকিৎসা করা হয়েছে।

নিহত মো. রোকন শিকদার টঙ্গী পশ্চিম থানার হাজী মাজার বস্তি এলাকার তোতা মিয়ার ছেলে। সোমবার দিবাগত রাত সোয়া ১১ টার দিকে টঙ্গী পশ্চিম থানার হাজী মাজার বস্তি এলাকায় এ ‘বন্দুকযুদ্ধে’র ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, একটি ম্যাগাজিন, ২ রাউন্ড তাজা গুলি ও ৩৯২০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে র্যাব। পরে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের মরদেহ গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

র‌্যাবের দাবি, নিহত রোকন শিকদার অস্ত্রধারী ও মাদক ব্যবসায়ী। তার বিরুদ্ধে মাদকসহ মোট ৩০টির অধিক মামলা রয়েছে। র‌্যাব-১ এর অপারেশনস অফিসার এএসপি মুশফিকুর রহমান তুষার আজ মঙ্গলবার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। মুশফিকুর রহমান তুষার জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সোমবার দিবাগত রাত সোয়া ১১ টার দিকে টঙ্গী বাজার হাজী মাজার বস্তি এলাকায় মাদক বেচাকেনার খবর পেয়ে র্যাব-১ এর একটি দল অভিযান চালায়।

এসময় র্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা র্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়লে আত্মরক্ষার্থে র্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। র্যাবের সঙ্গে গুলি বিনিময়কালে মাদক ব্যবসায়ী রোকন শিকদার নিহত হন।

ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, একটি ম্যাগাজিন, ২ রাউন্ড তাজা গুলি ও ৩৯২০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে র্যাব। পরে নিহতের লাশ উদ্ধার করে গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমেদ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এঘটনায় টঙ্গী পশ্চিম থানার অস্ত্র মাদক ও পুলিশ এ্যাসাল্ড আইনে তিনটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

এবিষয়ে গাজীপুরের টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শাহ আলম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, র্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে টঙ্গীর শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী রোকন শিকদার নিহত হয়েছেন। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় মাদকের একাধিক মামলা রয়েছে।