মহাখালী বস্তিতে আগুনের ঘটনায় ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন

এস,এম, মনির হোসেন জীবন ঃ রাজধানীর মহাখালীর সাত তলা টেমুর মোড় এস,এম, মনির হোসেন জীবন বস্তিতে লাগা আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে।

আগুনের খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের মোট ১৮টি ইউনিটের সদস্যরা আজ সোমবার সকাল ৬ টা ৩৫ মিনিটের সময় ওই আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। ।

এছাড়া আজ সকাল ৯ টা ১৫ মিনিটের সময় আগুন সম্পূর্ণ ভাবে নিবা’পন করে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা।

এঘটনায় ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের (উন্নয়ন) ডেপুটি ডিরেক্টর (ডিডি) নূর হাসান আহমেদকে প্রধান করে ৫ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সদর দপ্তরের ডিউটি অফিসার লীমা খানুম আজ সোমবার এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, আজ সোমবার ভোর ৩টা ৫৯ মিনিটের দিকে এ অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়।
তাৎক্ষণিকভাবে আগুনে হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি। তবে, অগ্নিকাণ্ডে কয়েকশো ঘর পুড়ে গেছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এঘটনায় এখন ও পয’ন্ত আমরা ফাইনাল রিপোর্ট হাতে পাইনি। রিপোর্ট পাওয়ার পর এ বিষয়ে বিস্তারিত বলা যাবে বলে জানান তিনি।

ফায়ার সার্ভিসের ডিউটি অফিসার আরও জানান, আজ ভোর ৩ টা ৫৭ মিনিটের সময় মহাখালীর সাত তলা টেমুর মোড় বস্তিতে আগুন লাগে। আর ৩ টা ৫৯ মিনিটের দিকে আগুনের খবর আসে কন্ট্রলরুমে। পরে খবর পেয়ে প্রথমে তেজগাঁও, বারিধারা, কুমিটোলা, ৮টি ইউনিট ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়। এরপর আগুনের ভয়াবহতা বাড়ায় উওরা, খিলগাও, পূবা’চল সহ মোট ১৮টি ইউনিট সেখানে পাঠানো হয় এবং তারা আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করে।

তিনি আরও বলেন, ১৮টি ইউনিট আড়াই ঘণ্টার চেষ্টায় ৬ টা ৩৫ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। পরপর আজ সকাল ৯ টা ১৫ মিনিটের সময় আগুনের ডাম্পিংয়ের কাজ শেষ করা হয়। এখনও পর্যন্ত কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। এছাড়া আগুন লাগার কারন ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণও জানা যায়নি।

বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয় বলে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে।

এদিকে, আগুনের ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. সাজ্জাদ হোসাইন।

এসময় তিনি সাংবাদিকদেরকে বলেন, বস্তিতে টিনের ঘর অনেক বেশি সেপারেশন হওয়ায় আমাদের আগুন নেভাতে বেগ পেতে হয়েছে। এছাড়া দাহ্য বস্তুর উপস্থিতি বেশি থাকায় আগুনটা বেশি ছড়িয়েছে।

আগুন লাগার কারণ সম্পর্কে তিনি বলেন, এখানে প্রচুর পরিমাণে অবৈধ গ্যাস ও বিদ্যুতের লাইন রয়েছে। আমরা প্রাথমিকভাবে মনে করছি, এই দুইটার থেকে যেকোনো একটি কারণে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে।

৫ সদস্যদের তদন্ত কমিটি গঠন
——————————————

এদিকে, মহাখালীর সাত তলা বস্তিতে ভয়াবহ আগুনের ঘটনায় সঠিক কারন ও ক্ষয়ক্ষতি খুঁজে বের করতে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এর পক্ষ থেকে আজ ৫ সদস্যদের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের (উন্নয়ন) ডেপুটি ডিরেক্টর (ডিডি) নূর হাসান আহমেদকে প্রধান করে এ কমিটি গঠন করা হয়।

কমিটির বাকী সদস্যরা হচ্ছে – ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপ সহকারী পরিচালক (ডিএডি) আবুল বাশার, তেজগাঁও ফায়ার স্টেশনে সিনিয়র স্টেশন অফিসার মাহমুদুল হাসান, ওয়্যার হাউজ ইন্সপেক্টর আব্দুল খালেক ও ওয়্যার হাউজ ইন্সপেক্টর গোলাম মোস্তফা।

এ তদন্ত কমিটিকে আগামী ৭ কায’ দিবসের মধ্যে আগুনের রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে।