বিমানবন্দর লরির ধাক্কায় মোটরসাইকেল কিশোর নিহত

এস,এম,মনির হোসেন জীবন : রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কের ভিআইপি গেটের সামনে লরির ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী এক কিশোর নিহত হয়েছে। নিহতের নাম মোহাম্মদ কিবরিয়া (১৩)। সে ময়মনসিংহ জেলার ফুলপুর উপজেলায় মো: শহিদ মিয়ার ছেলে।

শনিবার দিবাগত সাড়ে ৩টার দিকে বিমানবন্দর ভি আই পি গেট এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।
ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (ওসি) মো. বাচ্চু মিয়া আজ রোববার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
ঢামেক হাসপাতালের দায়িত্বরত এএসআই মোহাম্মদ খান নিহতের বাবা মো. শহিদ মিয়ার উদ্বৃতি দিয়ে আজ রোববার জানান, নিহত কিবরিয়া একটি মোটরসাইকেল গ্যারেজে কাজ করতো। মধ্য রাতের দিকে কাজ শেষে সে মোটরসাইকেলে করে বাসায় ফিরছিল। এসময় বিমানবন্দর ভিআইপি গেট এলাকায় একটি লরি তার মোটরসাইকেলকে এসে সজোরে ধাক্কা দিলে সে রাস্তায় ওপর ছিটকে পড়ে যায়। পরে স্থানীয় পথচারীরা তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে যান। আজ রোববার ভোর ৪টা ২০ মিনিটের দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
তিনি আরও জানান, তাদের গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলায়। বর্তমানে তারা উত্তরার বালুর মাঠ এলাকায় বসবাস করে আসছিল। তার দুই ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। দুর্ঘটনার পর লরিটি দ্রুতগতিতে পালিয়ে গেছে।
ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের মোহাম্মদ খান আজ রোববার দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, নিহত কিশোরের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। দুর্ঘটনার বিষয়টি বিমানবন্দর থানা পুলিশকে অবগত করা হয়েছে।তারা এব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করবেন।
বিমানবন্দর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. সাইফুল ইসলাম জানান, রাতে সুমন (১৮) নামে তার এক বন্ধুর মোটরসাইকেলে করে বাড্ডা থেকে বাসায় ফিরছিল কিবরিয়া। পরে বিমানবন্দর সড়কের ভিআইপি গেটের সামনে সড়ক দুর্ঘটনার শিকার হন। তবে, সুমনের কোনো আঘাত লাগেনি। নিহত কিবরিয়া উত্তরখান বালুর মাঠ এলাকায় থেকে চালাবনে একটি মোটর গ্যারেজে কাজ করতো বলে জানা গেছে।
তিনি জানান, এখন পর্যন্ত লরিটি শনাক্ত করা যায়নি। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। এবিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে।