টঙ্গীতে দুই কেজি ৬৩০ গ্রাম হেরোইনসহ ট্রাক ড্রাইভার ও হেলপার গ্রেফতার

এস,এম,মনির হোসেন জীবন : রাজধানীর অদূরে গাজীপুরের টঙ্গীতে অভিযান চালিয়ে দুই কেজি ৬৩০ গ্রাম হেরোইনসহ দুই মাদককারবারি ট্রাক ড্রা্ইভার ও হেলপারকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-১)।
গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিরা হলেন- চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর থানার লক্ষীপুর জামাদারপাড়া এলাকার মৃত মো. আব্দুর রহিমের ছেলে ট্রাক ড্রাইভার মো. মোশারফ (২৬) ও লক্ষীপুর এলাকার মৃত রেজাউল খানের ছেলে ট্রাকের হেলপার মো. তরিকুল ইসলাম (২৩)।
র‌্যাব-১ এর সহকারি পরিচালক ও কোম্পানি কমান্ডার মো. মোর্শেদুল হাসান আজ বৃহস্পতিবার এ সব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান,অভিযানকালে র‌্যাব-১ এর সদস্যরা চালের বস্তা বোঝাই একটি ট্রাকসহ ধৃত ট্রাক চালক ও হেলপারকে তল্লাশি চালিয়ে তাদের কাছ থেকে দুই কেজি ৬৩০ গ্রাম হেরোইন, তিনটি মোবাইল ফোন ও নগদ তিন হাজার ৩০০ টাকা জব্দ করা হয়।তবে, জকব্দকৃত হেরোইনের বাজার মূল্য প্রায় আড়াই কোটি টাকার বেশি বলে ধারনা করা হচেছ।
মো. মোর্শেদুল হাসান আরও জানান, মাদক চক্রের সদস্যরা চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে হেরোইনের একটি চালান ঢাকার উদ্দেশ্যে নিয়ে আসছে এমন সংবাদের ভিত্তির র‌্যাব-১ এর একটি দল বুধবার সন্ধ্যায় গাজীপুরের টঙ্গী পূর্ব থানার সিডিএল ভবনের সামনে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে চেকপোস্ট স্থাপন করে। এক পর্যায়ে চালের বস্তা বোঝাই একটি ট্রাকসহ ওই দুইজন ব্যক্তিকে আটক করে। পরে তল্লাশি চালিয়ে তাদের কাছ থেকে দুই কেজি ৬৩০ গ্রাম হেরোইন, তিনটি মোবাইল ফোন ও নগদ তিন হাজার ৩০০ টাকা উদ্ধার করা হয়।
র‌্যাব-১ এর সহকারি পরিচালক জানান, তারা একটি সংঘবদ্ধ মাদক ব্যবসায়ী চক্রের সক্রিয় সদস্য । প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে। তাদের অন্য সহযোগীরা চাঁপাইনবাবগঞ্জের সীমান্তবর্তী এলাকা দিয়ে অবৈধভাবে চোরাচালানের মাধ্যমে হেরোইন দেশে নিয়ে আসে। পরবর্তীতে হেরোইনের চালানগুলো কৌশলে বিভিন্ন পণ্যবাহী গাড়িতে করে ঢাকাসহ দেশের মাদক ব্যবসায়ীদের নিকট সরবরাহ করে থাকে। তারা সিন্ডিকেটের অন্য সদস্যদের নিকট পাইকারী মূল্যে হেরোইন বিক্রয় করত বলে জানায়।
ধৃত আসামী মোঃ মোশারফ’কে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, সে পেশায় একজন ট্রাক ড্রাইভার। সে দীর্ঘদিন যাবত এই মাদক ব্যবসা ও মাদক পরিবহনের সাথে জড়িত। সে চাঁপাইনবাবগঞ্জের জনৈক মাদক ব্যবসায়ীর নিকট হতে মাদক সংগ্রহ করে রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশের মাদক ব্যবসায়ীদের নিকট সরবরাহ করত। সে ইতিপূর্বে ১২/১৫ টি মাদকের চালান ঢাকাসহ আশপাশের জেলাসমূহে সরবরাহ করেছে বলে স্বীকার করে।
র‌্যাব জানান, এছাড়া মাদক পরিবহণে ধৃত আসামী মোঃ তরিকুল ইসলাম তার সহযোগী হিসেবে কাজ করে। ধৃত আসামী তরিকুল আটককৃত ট্রাকের হেল্পার। তারা একে অপরের সহযোগীতায় দীর্ঘদিন যাবত মাদক ব্যবসা ও মাদক পরিবহণ করে আসছিল বলে জানায়। মাদকের চালান প্রতি তাদেরকে ২০ থেকে ২৫ হাজার টাকা করে দিত মর্মে স্বীকার করে।
এবিষয়ে গ্রেফতারকৃত দুই আসামীকে জিঞ্জাসাবাদ শেষে আজ টঙ্গী পূর্ব থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। এব্যাপারে মাদকদ্রক্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।