টিকা নেয়ার প্রায় দুই মাস পর করোনায় আক্রান্ত সাংসদ চুমকি

কালীগঞ্জঃ  ভ্যাকসিন নেওয়ার এক মাস ২২ দিন পর বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মহিলা-বিষয়ক সম্পাদক ও গাজীপুর-৫ আসনের সংসদ সদস্য মেহের আফরোজ চুমকি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তবে তার শারীরিক অবস্থা ভালো রয়েছে।
রোববার (৪ এপ্রিল) সকালে মেহের আফরোজ চুমকির করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এইচ এম আবু বকর চৌধুরী এবং কালীগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলাম।

 

সংসদ সদস্য মেহের আফরোজ চুমকি মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতির দায়িত্বেও রয়েছেন। জানা যায়, গত ৭ ফেব্রুয়ারি সারা দেশে একযোগে করোনার টিকাদান কর্মসূচির শুরু হয়। প্রথম দিনই কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিজের শরীরে করোনা ভ্যাকসিন গ্রহণের মাধ্যমে কালীগঞ্জ উপজেলায় টিকাদান কার্যক্রমের উদ্বোধন করেছিলেন মেহের আফরোজ চুমকি।

কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এইচএম আবুবকর চৌধুরী এবং কালীগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলাম বলেন, সংসদ সদস্য মেহের আফরোজ চুমকির করোনার কোনো উপসর্গ ছিল না। ৪ এপ্রিল সংসদ অধিবেশনে যোগ দেওয়ার উদ্দেশ্যে শনিবার সকালে ঢাকায় সংসদ সচিবালয় চিকিৎসাকেন্দ্রে করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দেন তিনি। পরে তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। এর পর থেকে তিনি ঢাকায় তার বাসায় আইসোলেশনে রয়েছেন। মেহের আফরোজ চুমকি সুস্থ আছেন। তিনি সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার-পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো. মিনহাজ উদ্দিন মিয়া বলেন, গত ৭ ফেব্রুয়ারি সারা দেশে একযোগে করোনার টিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়। প্রথম দিনই মেহের আফরোজ চুমকি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা ভ্যাকসিন গ্রহণের মাধ্যমে কালীগঞ্জ উপজেলায় টিকাদান কার্যক্রমের উদ্বোধন করেছিলেন।

তিনি বলেন, এ পর্যন্ত কালীগঞ্জের চার হাজার ৮৬৭ জনের নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়েছেন ৬৩১ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৫৭৫ জন। কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়ে এবং মৃত্যুর পর পরীক্ষায় শনাক্ত হয়েছে ১৭ জনের। এ ছাড়া কালীগঞ্জে এ পর্যন্ত ১০ হাজার ২০০ জনকে করোনার ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।