কেরাণীগঞ্জে ভেজাল খাবার উৎপাদন করায় ১০ লক্ষ টাকা জরিমানা

এস,এম,মনির হোসেন জীবনঃ অনুমোদনহীন ভেজাল খাবার উৎপাদন, মজুদ ও বিক্রি করার অপরাধে ঢাকা জেলার কেরাণীগঞ্জে সাতটি প্রতিষ্ঠানকে মোট ১০ লক্ষ টাকা জরিমানা করেছে র্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এসময় প্রায় এক লক্ষ টাকার নিম্নমানের খাদ্যসামগ্রী এবং কাচামাল ধ্বংস করা হয়। র্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন ( র্যাব-১০) এর কমান্ডিং অফিসার (অধিনায়ক) এ্যাডিশনাল ডিআইজি মাহফুজুর রহমান বিপিএম আজ শুক্রবার এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

্যাব-১০ এর এএসপি (মিডিয়া) এনায়েত কবীর সোয়েব আজ শুক্রবার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টা থেকে বিকেল ৫ টা পর্যন্ত র্যাব এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আক্তারুজ্জামান ও র্যাব-১০ এর সমন্বয়ে একটি আভিযানিক দল ঢাকা জেলার কেরাণীগঞ্জ থানা এলাকায় একটি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে। এসময় ভ্রাম্যমাণ আদালত অনুমোদনহীন ভেজাল খাবার উৎপাদন, মজুদ ও বিক্রি করার অপরাধে সাতটি প্রতিষ্ঠানকে মোট ১০ লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়। তার মধ্যে রয়েছে – আনন্দ বেকারী এক লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা।

আমার দেশ বেকারী, এক লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা, আদি বাসুদেব মিষ্টান্ন ভান্ডার, পঞ্চাশ হাজার টাকা, মা মিষ্টান্ন ভান্ডার, পঞ্চাশ হাজার টাকা, হামজা ফুড প্রোডাক্টস, এক লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা, এমএস ফুড প্রোডাক্টস,এক লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা ও কুসুম বেকারী, তিন লক্ষ টাকা করে মোট ৭টি প্রতিষ্ঠানকে সর্বমোট দশ লক্ষ টাকা জরিমানা প্রদান করেন।

এএসপি এনায়েত কবীর সোয়েব আরও জানান, এসময় ভ্রাম্যমান আদালতের নির্দেশে প্রায় এক লক্ষ টাকা মূল্যমানের অনুমোদনহীন নিম্নমানের ও অস্বাস্থ্যকর খাদ্যসামগ্রী এবং খাদ্যসামগ্রী তৈরীর কাচামাল ধ্বংস করা হয়। দীর্ঘদিন ধরে এই অসাধু ব্যবসায়ীরা ঢাকা জেলার কেরাণীগঞ্জ এলাকায় এসকল অনুমোদনহীন নিম্নমানের খাদ্যসামগ্রী তৈরী করে আসছিল।