দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ থেকে অপহৃত হওয়া ভিকটিম উদ্ধার! ৭ অপহরণকারী গ্রেফতার

এস, এম, মনির হোসেন জীবন :রাজধানীর অদূরে দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ থেকে অপহৃত হওয়া ভিকটিম মোঃ শাহজাহান (২২)কে

উদ্ধার করেছে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।
এঘটনার সাথে জড়িত অপহরণকারী সংঘবদ্ধ চক্রের ৭ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
এসময় তাদের নিকট থেকে ৯ টি মোবাইল ফোন জব্দ করে।

র‌্যাব- ১০ এর এএসপি( মিডিয়া) এনায়েত কবীর সোয়েব আজ বুধবার এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গোপন সংবাদের ভিওিতে র‌্যাব-১০ এর একটি আভিযানিক দল মঙ্গলবার দিবাগত রাত আড়াই টার দিকে ঢাকা জেলার দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ থানার আগানগর কাঠুরিয়া এলাকায় একটি অভিযান চালায়। অভিযানকালে র‌্যাব সদস্যরা অপহৃত হওয়া ভিকটিম মোঃ শাহজাহান (২২)কে উদ্ধার করে। এসময় অপহরনকারীরা চক্রের ৭ সদস্যকে আটক করা হয়।

র‌্যাব-১০ সূএে জানা যায়, গ্রেফতারকৃত অপহরনকারীরা হচ্ছে – মোঃ আসলাম (২৫), সৈয়দ আল আমিন (২২), মোঃ ফয়েজ উল্লাহ (২০), মোঃ রহমত উল্লাহ সরকার (১৮), সৈয়দ মোরসালিন (১৮), মোঃ ইমরান (১৮) ও মোঃ শাহদাত হোসেন (১৮)।

এসময় তাদের নিকট থেকে ৯ টি মোবাইল ফোন জব্দ করে।

র‌্যাব জানান, গত ১৪ জুন সকালে প্রতিদিনের মত ভিকটিম মোঃ শাহজাহান (২২) তার কর্মস্থলে যায়। কিন্তু রাত গভীর হয়ে গেলেও ভিকটিম কর্মস্থল থেকে তার বাসায় না ফিরলে ভিকটিমের পরিবারের সদস্যরা তার সন্ধানের বিভিন্ন জায়গায় খোজাখুজি করতে থাকে। পর দিন ১৫ জুন ( মঙ্গলবার) সকালে ভিকটিমের বড় ভাই ভিকটিমের শশুরের নিকট থেকে জানতে পারে ভিকটিমকে অপহরন করা হয়েছে।
পরে এমন সংবাদ প্রাপ্তির পর ভিকটিমের বড় ভাই ভিকটিমের ব্যবহৃত মোবাইল নম্বরে ফোন করলে ভিকটিমের উচ্চস্বরে কান্নাকাটি শব্দ শুনতে পায় এবং অপহরনকারীদের এক জন ভিকটিমের বড় ভাইয়ের নিকট ভিকটিমের মুক্তিপনের জন্য বিকাশের মাধ্যমে দেড় লক্ষ টাকা পাঠাতে বলে। দাবিকৃত টাকা না দিলে ভিকটিমকে মেরে ফেলা হবে বলে হুমকি প্রদান করে। পরবর্তীতে ভিকটিমের বড় ভাই র‌্যাবের নিকট অভিযোগ করলে ব্যার-১০ ভিকটিমকে উদ্ধার করার জন্য তাৎক্ষনিক একটি বিশেষ টিম নিয়োগ করে।

এএসপিএনায়েত কবীর সোয়েব জানান,
পরবর্তীতে ব্যার-১০ এর একটি আভিযানিক দল ছায়া তদন্তের মাধ্যমে মঙ্গলবার দিবাগত রাত আড়াই টার দিকে ঢাকা জেলার দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ থানার আগানগর কাঠুরিয়া এলাকায় অপহরনকারীদের দখল থেকে ভিকটিম মোঃ শাহজাহান (২২) কে উদ্ধর করে এবং ৭ অপহরকারীকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, গ্রেফতারকৃত অপহরনকারীরা ১ নং আসামী আসলাম এর নেতৃত্বে গত ১৪ জুন রাত্র অনুমান পৌনে ১১ টার দিকে ভিকটিম মোঃ শাহজাহান (২২) কে কর্মস্থল থেকে তার বাসায় যাওয়ার পথে অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরে তারা ভিকটিমের ব্যবহৃত মোবাইল থেকে ভিকটিমের বড় ভাইয়ের নিকট মুক্তিপনের ১৫ লাখ টাকা দাবী করেছিল বলে জানা যায়।

আজ বুধবার প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আটককৃত সাত জন অপহরনকারীকে কেরাণীগঞ্জ থানা পুলিশের নিকট সোপর্দ করেছে।

এঘটনায় গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় ভিকটিমের বড় ভাই বাদী হয়ে একটি অপহরন মামলা দায়ের করেছে।