বাড্ডা থেকে ৫০ লাখ জাল টাকা ও বিভিন্ন সরঞ্জামাদিসহ গ্রেফতার – ১

এস, এম, মনির হোসেন জীবন– রাজধানীর বাড্ডা এলাকায় অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমান জাল টাকা ও জাল টাকা প্রস্তুতকারী সংঘবদ্ধ চক্রের সক্রিয় এক সদস্যকে বিভিন্ন সরঞ্জামাদিসহ গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

গ্রেফতারকৃত ব্যক্তির নাম মোঃ নাইমুল হাসান তৌফিক (২১)।
গ্রেফতারকৃত ব্যক্তি সংঘবদ্ধ জাল নোট প্রস্তুতকারী চক্রের একজন সক্রিয় সদস্য বলে জানিয়েছে র‌্যাব।
এসময় তার নিকট থেকে ৫০ লাখ ২৮ হাজার টাকা সমমূল্যের জাল নোট,
জাল টাকা তৈরির কাজে ব্যবহৃত ১টি ল্যাপটপ, ১ টি প্রিন্টার, ১টি মোবাইল ফোন ও নগদ ৪ হাজার ৮২০ টাকা উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-১০) এর কমান্ডিং অফিসার (অধিনায়ক) এ্যাডিশনাল ডিআইজি মাহফুজুর রহমান আজ মঙ্গলবার এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে, র‌্যাব-১০ এএসপি (মিডিয়া) এনায়েত কবীর সোয়েব আজ মঙ্গলবার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, র‌্যাব-১০ গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, রাজধানীতে জাল নোট প্রস্তুতকারী একটি সক্রিয় চক্র জালনোট তৈরি করে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বিপনন করে আসছে। পরে এমন গোপন সংবাদের ভিওিতে র‌্যাব-১০ এর একটি আভিযানিক দল সোমবার দিবাগত রাত ১ টা ৫ মিনিটের সময় রাজধানীর বাড্ডা থানার মেরুল বাড্ডা হাজ্বী জয়নব উদ্দিন লেন এলাকায় একটি অভিযান চালায়।

অভিযানকালে র‌্যাব-১০ এর সদস্যরা ৫০ লাখ ২৮ হাজার টাকা সমমূল্যের জাল নোট ও জাল টাকা তৈরির বিভিন্ন সরঞ্জামাদিসহ জাল টাকা সরবরাহকারী চক্রের এক সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করে। তার মধ্যে ১০০০, ৫০০ ও ১০০ টাকার জাল নোট রয়েছে।

র‌্যাব জানান, গ্রেফতারকৃত ব্যক্তির নাম মোঃ নাইমুল হাসান তৌফিক (২১)। এসময় তার নিকট থেকে জাল টাকা তৈরির কাজে ব্যবহৃত ১টি ল্যাপটপ, ১ টি প্রিন্টার, ১টি মোবাইল ফোন ও নগদ ৪,৮২০ টাকা উদ্ধারমূলে জব্দ করা হয়।

প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায়, গ্রেফতারকৃত ব্যক্তি সংঘবদ্ধ জাল নোট প্রস্তুতকারী চক্রের একজন সক্রিয় সদস্য। সে প্রায় ২/৩ বছর যাবৎ এই জাল নোট চক্রের সাথে জড়িত হয়ে জাল নোট প্রস্তুত করে আসছে।

এবিষয়ে আজ মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৫ টার দিকে রাজধানীর কারওয়ান বাজারস্হ
র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে এক প্রেস কনফারেন্স’ র আয়োজন করা হয়।

এসময় র‌্যাব-১০ এর এএসপি (মিডিয়া) এনায়েত কবীর সোয়েবসহ র‌্যাবের অন্যান্য উধব’তন কম’কতা’রা উপস্থিত ছিলেন।

এ বিষয়ে র‌্যাব-১০ এর কমান্ডিং অফিসার (অধিনায়ক) এ্যাডিশনাল ডিআইজি মাহফুজুর রহমান সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানিয়ে বলেন, প্রতি এক লক্ষ টাকা জাল নোট ৩০ হাজার টাকায় বিক্রি করে আসছিল
ধৃত মোঃ নাইমুল হাসান তৌফিক (২১)।

তিনি আরও জানান, এছাড়া সে আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে বিভিন্ন গরুর হাটসহ অন্যান্য বাজারে সরবরাহ করার উদ্দেশ্যে এই বিপুল পরিমান জাল টাকা তৈরি করছিল বলে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়।

এ সংঘবদ্ধ দলের বাকি সদস্যদের গ্রেফতারের জন্য র‌্যাবের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

এবিষয়ে গ্রেফতারকৃত ব্যক্তির বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছে র‍্যাব।