রাজধানীর উত্তরা এলাকায় র‌্যাবের অভিযানে ২৩ জন জুয়াড়ি গ্রেফতার।

মনির হোসেন জীবনঃ র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) প্রতিষ্ঠাকালীন সময় থেকেই দেশের সার্বিক আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সমুন্নত রাখার লক্ষ্যে সব ধরণের অপরাধীকে আইনের আওতায় নিয়ে আসার ক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। র‌্যাব নিয়মিত জঙ্গী, সন্ত্রাসী, সংঘবদ্ধ অপরাধী, অস্ত্রধারী অপরাধী, মাদক, ছিনতাইকারীসহ কেসিনোর(জুয়ারী) বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়ে আসছে।
এরই ধারাবাহিকতায় গত ১৩ জুলাই  আনুমানিক ৮টার দিকে র‌্যাব-১০ এর একটি আভিযানিক দল রাজধানী ঢাকার উত্তরা পশ্চিম থানাধীন ০৩ নং সেক্টর এলাকায় একটি অভিযান পরিচালনা করে জুয়াড় আসর হতে জুয়া খেলা অবস্থায় ২৩ জন জুয়াড়িকে গ্রেফতার করে।
 গ্রেফতারকৃত হলেন ১। মোঃ মহিউদ্দিন (৪৫), ২। মোঃ মিনাজুর রহমান (৪৩), ৩। মোঃ কামাল (৬০), ৪। মিজানুর রহমান (৫১), ৫। আলাউদ্দিন খান আলাল (৫০), ৬। সাদিকুল ইসলাম (৫৯), ৭। আতিকুর রহমান (৫১), ৮। মাহাবুব আলম (৪১), ৯। জাহাঙ্গীর আলম (৫০), ১০। মোঃ দুলাল (৪৭), ১১। রেজাউল করিম (৫২), ১২। হারিছ উদ্দিন (৫৮), ১৩। মোঃ রুহুল আমিন (৪৫), ১৪। হাবিব (৫২), ১৫। মোঃ আলীনুর রহমান (৫৩), ১৬। মোঃ ইদ্রিস আলী (৪৫), ১৭। মোঃ রতন কাজী (৫১), ১৮। মোঃ নয়ন আলী (৩২), ১৯। মোঃ ইমরান (২০), ২০। ওমর ফারুক (৫৪), ২১। শাহীন আলম (২৭), ২২। মোঃ রাফে (৪৪) ও ২৩। মোঃ কামরুল হাসান (৬৬) বলে জানা যায়। এসময় তাদের নিকট থেকে খোলা অবস্থায় ৩১২ পিস জুয়া খেলার তাস (কার্ড), ২২ টি মোবাইল ফোন ও নগদ- ১,৩৩,২৮০/- (এক লক্ষ তেত্রিশ হাজার দুইশত আশি) টাকা উদ্ধার করা হয়।
প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিরা পেশাদার জুয়াড়ি। তারা বেশ কিছুদিন যাবৎ একে অন্যের সাথে জুয়া খেলে সমাজে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে এবং জুয়া খেলার মাধ্যমে নিজেদের সর্বস্ব হারাচ্ছে বলে যানা যায়।
গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় নিয়মিত মামলা রুজু করা রয়েছে।