শাহজালালে আড়াই কোটি মূল্যের বৈদেশিক মূদ্রা বিদেশে পাচারকালে এক যাত্রী আটক

এস, এম, মনির হোসেন জীবন – রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে প্রায় আড়াই কোটি টাকা মূল্যের বৈদেশিক মুদ্রা বিদেশে পাচারকালে এক যাএীকে গ্রেফতার করেছে এয়ারপোর্ট আর্মড পুলিশ (এপিবিএন)।
আটককৃত ওই ব্যক্তির নাম জাহাংগীর গাজী। তিনি আজ সোমবার সকালে তার্কিশ এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটে তুরস্ক যাওয়ার সময় তাকে বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা সহ হাতে নাতে আটক করে।

আজ সোমবার বিমানবন্দর আর্মড পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এসপি) জিয়াউল হক পলাশ বৈদেশিক মুদ্রা আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, আজ সোমবার ভোর সাড়ে ৬টায় ফ্লাইটে যাওয়ার সময় ইমিগ্রেশন শেষে উড়োজাহাজে উঠার আগ মুহুর্তে তাকে আটক করা হয়। তার সংগে মূদ্রা থাকার কথা জিজ্ঞাসা করলে তিনি অস্বীকার করেন৷ পরবর্তীতে তল্লাশী করা হলে তার ব্যাগের ভিতরে শার্টের মধ্যে লুকানো অবস্থায় ৮ টি দেশের মূদ্রা পাওয়া যায়। এরমধ্যে ১১ লাখ ৬৫ হাজার সৌদি রিয়াল রিয়াল ছিলো। এছাড়া ইউএস, মালয়েশিয়া, ইউরো, ওমান, কুয়েত, থাইল্যান্ড, দুবাইয়ের মুদ্রা ছিলো। যার বাজার মূল্য ২ কোটি ৫০ লাখ বাংলাদেশী টাকা।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জিয়াউল
হক পলাশ বলেন, এই যাত্রী আগে কাপড়ের ব্যবসা করতেন। এছাড়া তিনি গত দুই বছরে ১৩৫ বার বিভিন্ন সময় আসা যাওয়া করেন। তিনি মূলত ব্যাগেজ সুবিধায় বিভিন্ন মুল্যবান জিনিস শুল্ক ফাকি দিয়ে আনা নেওয়ার কাজ করতো।

এপিবিএন পুলিশের এ কর্মকর্তা জানান,
এর আগে ২০ জুলাই প্রায় ১৪ কেজি তরল সোনা আটক করে আর্মড পুলিশ। এই সোনা তুরস্ক থেকে নানা হয়। মূদ্রাপাচারকারীও সোনা চোরাচালানের কাজে এই টাকা ব্যবহার করতে পারে বলে ধারণা পুলিশের।

মোহাম্মদ জিয়াউল হক বলেন, এই যাত্রীকে কাস্টম আইনে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। মূদ্রাসহ তাকে কাস্টমসের হাতে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এবিষয়ে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের প্রস্তুতি চলছে বলে তিনি জানান।