আনসারুল্লাহ বাংলা টিম’র এক সদস্য গ্রেফতার

এস, এম, মনির হোসেন জীবন– নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গী সংগঠন আনসারুল্লাহ বাংলা টিম (এবিটি) এক সক্রিয় সদস্যকে চাঁদপুর থেকে গ্রেফতার করেছে এন্টি টেররিজম ইউনিট (এটিইউ)।

গ্রেফতারকৃতের নাম মোহাম্মদ হোসাইন (৩১), পিতা-মুফতি সিরাজুল ইসলাম, মাতা-মনোয়ারা
বেগম, স্থায়ী ঠিকানা – মধ্য তরপুর চন্ডী, চাদপুর সদর, জেলা- চাদপুর।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে বাংলাদেশ পুলিশের এন্টি টেররিজম ইউনিটের পুলিশ সুপার (মিডিয়া অ্যান্ড অ্যাওয়ারনেস) মোহাম্মদ আসলাম খান এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, এন্টি টেররিজম ইউনিট (এটিইউ)র একটি চৌকস দল গোপন সংবাদ ও নিজস্ব নজরদারীর ভিত্তিতে সোমবার বিকেল পৌনে ৫ টার দিকে চাঁদপুর সদর মডেল থানার চাদপুর পৌরসভার শিলন্দিয়া মুন্সিবাড়ী এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এসময় তার নিকট থেকে ১ টি অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ফোন, ২ টি সীম কার্ড ও ১ টি মেমোরি কার্ড জব্দ করেছে।

মোহাম্মদ আসলাম খান আরো জানান, গ্রেফতারকৃত মোহাম্মদ হোসাইন সোশ্যাল মিডিয়া ও এনক্রিপ্টেড অ্যাপ ব্যবহার করে উগ্রপন্থী মতবাদ প্রচার এবং অন্যদের জঙ্গীবাদে জড়াতে উৎসাহিত করে সশস্ত্র জিহাদে অংশগ্রহণের জন্য প্রশিক্ষণ গ্রহণ করার জন্য উদ্বুদ্ধ করে আসছিল।

এছাড়া সে দীর্ঘদিন যাবত ফেইসবুকে ফেইক আইডি ব্যবহার করে জনসাধারণের ভিতর আতঙ্ক সৃষ্টি ও ধর্মীয় উগ্রবাদী মতার্দশ প্রচারের মাধ্যমে বাংলাদেশের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতি, নাশকতামূলক কার্যক্রম এবং ‘আনসারুল্লাহ বাংলা টিম (এবিটি)’ এর মতাদর্শ অনলাইনে প্রচার করে আসছিল।

এন্টি টেররিজম ইউনিট (এটিইউ)র এ কর্মকর্তা আরো জানান, ধৃত আসামী বিভিন্ন ফেইসবুক পেইজের উগ্রবাদী পোস্টে লাইক, কমেন্ট, শেয়ার করত। সে নিজেও তার ফেইক আইডি থেকে বিভিন্ন পোস্ট করে উগ্রবাদী কার্যক্রমে উৎসাহ দেওয়ার সাথে সাথে জিহাদের প্রস্তুতি গ্রহণ করছিল।

এছাড়া সে ‘আনসারুল্লাহ বাংলা টিম’ এর সদস্য সংগ্রহ, প্রশিক্ষণ গ্রহণ ও প্রদানের ব্যাপারে এবিটি সদস্যদের উদ্বুদ্ধ করে খিলাফত রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার জন্য প্রচার প্রচারণা চালিয়ে আসছিল।

গ্রেফতারকৃত আসামী মোহাম্মদ হোসাইন নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন ‘আনসারুল্লাহ বাংলা টিম (এবিটি)’ এর
সদস্য পদ গ্রহণ, সমর্থন, অপরাধ সংগঠনের ষড়যন্ত্র এবং সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে প্ররোচিত করায় তার বিরুদ্ধে চঁাদপুর সদর মডেল থানার মামলা নং-১১, তারিখ-০৬/০৯/২০২১খ্রি:, সন্ত্রাস বিরোধী আইন ২০০৯ (সংশোধনী-২০১৩) এর ৮/৯(৩)/১০/১৩ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।