রাজধানীতে পৃথক সড়ক দু্র্ঘটনায় নিহত- ২ আহত-১

এস, এম, মনির হোসেন জীবন – রাজধানীতে পৃথক সড়ক দু্র্ঘটনায় দুই ব্যক্তি নিহত ও একজন দৃষ্টি প্রতিবন্ধি আহত হয়েছে।

উত্তর বাড্ডা ও যাত্রাবাড়ীর কাজলা এলাকায় আজ শনিবার ভোরে ও শুক্রবার মধ্যরাতে পৃথক এসব দু্র্ঘটনা ঘটে।

বাড্ডা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো, আবুল কালাম আজাদ আজ শনিবার এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, নিহতরা হলো, ফয়সাল (২৮) ও আনোয়ার হোসেন মীর (৫৪)। এ ঘটনায় আহত হরিচরণ দৃষ্টি প্রতিবন্ধীকে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দুর্ঘটনা কবলিত ঘাতক কাভার্ডভ্যানটি বাড্ডা থানা পুলিশ জব্দ করেছে। তবে, গাড়ি চালক কৌশলে পালিয়ে গেছে। তাকে আটকের চেষ্টা চলছে।

ওসি আবুল কালাম আজাদ জানান, শুক্রবার দিবাগত রাত সোয়া ১২টার দিকে বাড্ডায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাদের দুজনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক রাত ৩টার দিকে ফয়সালকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে বাড্ডা থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) শহিদুল ইসলাম জানান, শুক্রবার রাতে বাড্ডা জেনারেল হাসপাতালের সামনে রাস্তা পারাপারের সময় একটি কাভার্ডভ্যান ওই দুই পথচারীকে ধাক্কা দেয়। এতে গুরুতর আহত হন তারা। খবর পেয়ে তাদের উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে পরে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে যাওয়া হয়।

তিনি আরো জানান, নিহত ফয়সাল নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চরকাকড়া গ্রামের দেলোয়ার হোসেনের ছেলে। তিনি একটি প্যাকেজিং কারখানায় চাকরি করতেন বলে জানা গেছে।

এদিকে, যাত্রাবাড়ী থানার পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মনির হোসেন জানান, শনিবার ভোর পাঁচটার দিকে যাত্রাবাড়ীর কাজলা এলাকায় অজ্ঞাত গাড়ির ধাক্কায় মোটরসাইকেলের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি দুর্ঘটনাটি ঘটে। আমরা ৯৯৯-এ ফোন পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখি রাস্তায় রক্তাক্ত অবস্থায় এক ব্যক্তি পড়ে আছে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সকাল ছয়টার দিকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের ছেলে ইয়াকুব হোসেন জানান, মৃত আনোয়ারের বাড়ি ফেনী জেলার পরশুরামপুর উপজেলার সোবার বাজার গ্রামে। তার বাবার নাম মীর হোসেন।

পুলিশের এ কর্মকর্তা আরো জানান, মৃত আনোয়ার ডেমরা সারুলিয়া এলাকায় থাকতেন। তিনি একজন কিডনী রোগী ছিলেন। ডেমরার বাসা থেকে মোটরসাইকেলে করে গণস্বাস্থ্য হাসপাতালে কিডনি ডায়ালাইসিসের জন্য যাচ্ছিলেন। রাস্তায় অজ্ঞাত কোনো যানবাহনের ধাক্কায় মারা যান তিনি। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেকের মর্গে রাখা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন এসআই মনির হোসেন।

ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (ওসি) মো, বাচ্চু মিয়া আজ শনিবার এসব তথ্য নিশ্চিত করে জানান, রাজধানীর বাড্ডা ও যাএাবাড়িতে পৃথক সড়ক দু্র্ঘটনায় নিহত দুই ব্যক্তির মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক মর্গে রাখা হয়েছে।
এবিষয়ে সংশ্লিষ্ট থানায় আলাদা দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।